ওয়ার্ডপ্রেসটেলিগ্রামব্লগার

ওয়েবসাইটের জন্য স্টাইলিশ টেলিগ্রাম বাটন তৈরি করার নিয়ম।

ওয়েবসাইটে টেলিগ্রাম লিংক যুক্ত করার সুবিধা।

ব্লগ ওয়েবসাইটে বেশিরভাগ ভিজিটর সার্চ ইঞ্জিন গুগল থেকে আসে। তারা যে বিষয়ে জানতে চায় গুগলে গিয়ে তা লিখে সার্চ করে।

গুগলের সার্চ রেজাল্টের পেইজ থেকে আমার-আপনার ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে এবং আর্টিকেল পড়া হয়ে গেলে আবা সাইট থেকে চলে যায়।

আপনি যদি আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটের ভিজিটর ধরে রাখতে চান কিংবা ভিজিটরদের আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটের আপডেট জানাতে চান তাহলে আপনি একটি টেলিগ্রাম চ্যানেল খুলতে পারেন এবং আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটে সেই টেলিগ্রাম চ্যানেলের লিংক যুক্ত করতে পারেন।

আপনার সাইটের ভিজিটররা লিংককের মাধ্যমে আপনার টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হবে। এবং চ্যানেলের মাধ্যমে আপনার ব্লগের নতুন নতুন পোস্টের আপডেট পাবে। আর সেখান থেকে আপনার সাইটে ভিজিট করবে।

এভাবে আপনি আপনার সাইটের ভিজিটর ধরে রাখতে পারেন। অথবা, আপনি চাইলে আপনার ব্যক্তিগত টেলিগ্রাম আইডির লিংক আপনার ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে পারেন, যাতে সাইটের ভিজিটররা টেলিগ্রাম ব্যবহার করে আপনার সাথে খুব সহজেই যোগাযোগ করতে পারে।

আর এর জন্য আপনি আপনার সাইটে আপনার পছন্দসই কাস্টমাইজ করে একটি স্টাইলিশ টেলিগ্রাম বাটন যুক্ত করে নিতে পারেন।

প্রযুক্তি প্রিয়’র আজকের এই টিউটোরিয়ালে আপনি জানতে চলেছেন, আপনার ওয়েবসাইটের জন্য কীভাবে স্টাইলিশ টেলিগ্রাম বাটন তৈরি করবেন এবং কীভাবে তা আপনার ওয়েবসাইটে সেট করবেন।

আরেকটি মজার ব্যপার হচ্ছে, আপনি যদি নিচে দেখানো পদ্ধতিতে টেলিগ্রাম চ্যানেলের জন্য বাটন তৈরি করেন তাহলে আপনার টেলিগ্রাম চ্যানেলে কতজন সদস্য রয়েছে তা বাটনের নিচে লাইভ শো করবে।

ওয়েবসাইটের জন্য স্টাইলিশ টেলিগ্রাম বাটন তৈরি করার নিয়ম।

০১. কম্পিউটার অথবা মোবাইলের যেকোনো ব্রাউজার থেকে www.telegram.im ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।

০২. ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করার পর “Get Button” এবং “Generate Logo” নামে দুটি অপশন দেখতে পাবেন।

ওয়েবসাইটের জন্য স্টাইলিশ টেলিগ্রাম বাটন তৈরি করার নিয়ম।

আপনার ওয়েবসাইটের জন্য টেলিগ্রাম বাটন তৈরি করতে “Get Button” লেখা অপশনে প্রবেশ করুন।

০৩. এরপর আপনি নিচের চিত্রের মতো দেখতে পাবেন। এখানে আপনাকে কিছু তথ্য দিতে হবে এবং এখান থেকেই আপনি আপনার টেলিগ্রাম বাটনটি পছন্দসই কাস্টমাইজ করে নিতে পারবেন। আপনার কাস্টমাইজ করা বাটনটির প্রিভিউ দেখানো হবে।

ওয়েবসাইটের জন্য স্টাইলিশ টেলিগ্রাম বাটন তৈরি করার নিয়ম।

  • Background: আপনি চাইলে আপনার পছন্দ অনুযায়ী বাটনের জন্য রঙ নির্বাচন করে দিতে পারবেন এখান থেকে।
  • Text Colour: বাটনের মাঝে যে লেখা থাকবে তার রঙ কেমন হবে তা এখান থেকে নির্বাচন করে দিতে পারবেন।
  • Pulse: এটি সিলেক্ট অবস্থায় রাখলে বাটনের চার পাশে একটি বর্ডার নড়াচড়া করবে। আর এটি সিলেক্ট করে না রাখলে বাটন স্থির অবস্থায় থাকবে।
  • Telegram Login: এই ঘরে আপনার টেলিগ্রাম অ্যাকাউন্ট বা চ্যানেলের ইউজার নেইম লিখতে হবে।
  • Width Button: বাটনের প্রস্থ নির্বাচন করুন্ম
  • Text On Button: বাটনে আপনি কী লেখা দেখাতে চান তা এখানে লিখে দিন। যেমন: “Join Our Telegram Channel.” কিংবা “Contact With Telegram.”। অথবা আপনি চাইলে বাংলাতেও লিখে দিতে পারেন। যেমন: আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হোন, টেলিগ্রামে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ইত্যাদি।
  • Text Size: বাটনের লেখাগুলোর সাইজ নির্ধারণ করে দিন।
  • Title On Button: আপনার টেলিগ্রাম বাটনের জন্য একটি টাইটেল লিখুন।
  • Border Redius: আপনার পছন্দসই Border Redius নির্ধারণ করে দিন।

আপনার কাস্টমাইজ করা বাটনটির প্রিভিউ দেখে যদি দেখেন সব ঠিকঠাক আছে তাহলে “Get Code” লেখায় ক্লিক করুন।

“Get Code” লেখায় ক্লিক করলে আপনাকে একটি কোড দেওয়া হবে। আপনি সে কোড Copy করে নিয়ে আপনার Blogger কিংবা WordPress ওয়েবসাইটের যে জায়গায় টেলিগ্রাম বাটন যুক্ত করতে চান সেখানে তা বসিয়ে সেট করে দিন।

50% LikesVS
50% Dislikes

Robin Miah

আমি রবিন মিয়া, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!