অনলাইন ইনকাম

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করুন PicoWorkers ওয়েবসাইট থেকে।

PicoWorkers থেকে মোবাইল দিয়ে কীভাবে টাকা ইনকাম করা যায়?

আমরা আমাদের প্রাত্যহিক দিনের দীর্ঘ সময় ব্যয় করি মোবাইল টিপাটিপি, গান শুনে, গেমস খেলে, ভিডিও দেখে, নেট ব্রাউজ করে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে।

আমরা আমাদের অলস সময় ছাড়াও অনেক মূল্যবান সময় নষ্ট করি এসবের পিছনে। অথচ আমরা আমাদের এসব অবসর সময়কে কাজে লাগিয়ে, হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়ে টাকা আয় করতে পারি।

যা হয়তো অনেকেই জানিনা। তবে বেশিরভাগ স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছেলেরা অনলাইন থেকে টাকা উপার্জন করতে আগ্রহী।

কিন্তু কম্পিউটার নেই বলে কিছু করতে পারেনা। মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার উপায় তারা জানেনা আর জানলেও সঠিক দিকনির্দেশনা তারা পায়না।

অনলাইনে অসংখ্য টাকা আয় করার Appsটাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট রয়েছে। তবে তার সিংহভাগই হচ্ছে ভুয়া।

ইউটিউবসহ বিভিন্ন ব্লগ ওয়েবসাইটে “মাত্র ৫ মিনিট কাজ করে এন্ড্রয়েড মোবাইল দিয়ে ৫০০-১০০০ টাকা আয় করুন, মোবাইল দিয়ে টাকা আয় বিকাশে পেমেন্ট app মাত্র ১০ মিনিট কাজ করে।” ইত্যাদি ইত্যাদি শিরোনামে অসংখ্য ভিডিও, পোস্ট দেখা যায়।

আমি হলফ করে বলতে পারি, যার সবই ভুয়া। যারা এসব পোস্ট ও ভিডিও প্রকাশ করে তারা হয়তো রেফার করে কিছু টাকা আয় করতে পারে, তবে যারা তাদের অনুকরণ করে এসব করে, তাদের সময় নষ্ট করা ছাড়া কোনো লাভই হয়না।

আমি নিজেও ছাত্র জীবনের মূল্যবান সময় এসবের পিছনে নষ্ট করেছি। কতশত বাটপারের খপ্পরে পড়ে কতো টাকা নষ্ট করেছি তার হিসাব নেই।

তাই যারা অনলাইনে “মোবাইল দিয়ে কীভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করা যায়, কীভাবে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করব, কীভাবে অনলাইন থেকে টাকা আয় করা যায়?” ইত্যাদি ইত্যাদি লিখে খোজাখুজি করেন তাদের জন্যই আজকের এই আর্টিকেল।

চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক আসলেই মোবাইল দিয়ে অনলাইন থেকে টাকা আয় করা যায় কিনা।

মোবাইল দিয়ে কি টাকা আয় করা যায়? (মোবাইল দিয়ে টাকা আয় ২০২২)

আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে, “মোবাইল দিয়ে কি সত্যি সত্যিই টাকা আয় করা যায়?” এর উত্তর হচ্ছে, হ্যাঁ মোবাইল দিয়ে আউটসোর্সিং করা যায়।

তবে এর জন্য প্রয়োজন পড়বে স্মার্টফোন। আর আমরা জানি আমাদের হাতের স্মার্টফোন দিয়ে অনেক কঠিন কঠিন কাজ করে ফেলতে পারি, তাহলে কেন ইন্টারনেট থেকে টাকা উপার্জন করতে পারবো না?

তবে মোবাইল দিয়ে টাকা উপার্জন করতে হলে প্রয়োজন পড়বে প্রচুর আগ্রহ, চেষ্টা, সময় ও পরিশ্রম।

পূর্বের একটি আর্টিকেল’এ মোবাইল দিয়ে অনলাইন থেকে টাকা আয় করার ১৪ টি সহজ উপায় আলোচনা করেছিলাম।

যেখানে ১০ নাম্বারের উপায়টি ছিল মাইক্রোওয়ার্ক ওয়েবসাইট থেকে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার উপায়।

আজকের এই আর্টিকেলে মাইক্রো জব ওয়েবসাইট থেকে কীভাবে মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায় তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

এবং খুবই জনপ্রিয় একটি মাইক্রোওয়ার্ক ওয়েবসাইট পিকোওয়ার্ক‘এ কীভাবে অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়, কীভাবে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করতে হয় সেসব বিষয় নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা করবো।

মাইক্রোওয়ার্ক ওয়েবসাইট কী? বা Picoworkers কী?

অনলাইনে এমন কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে ছোট ছোট অনেক সহজ কাজ করে ডলার ইনকাম করা যায়, এসব ওয়েবসাইটকেই মূলত মাইক্রোওয়ার্ক ওয়েবসাইট বলা হয়ে থাকে।

Picoworkers.Com ওয়েবসাইটও তেমনই একটি মাইক্রো ওয়ার্ক ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট। যেখানে অসংখ্য ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছোটখাটো কাজ করে খুব সহজে টাকা উপার্জন করছে।

অনলাইনে বিভিন্ন মাইক্রো ওয়ার্ক ওয়েবসাইট থাকলেও পিকোওয়ার্কারস খুবই জনপ্রিয় এবং বিশ্বস্ত একটি ওয়েবসাইট।

Picoworkers থেকে ইনকাম করার সুবিধাসমূহ:

০১. Picoworkers ওয়েবসাইটে সাধারণত ছোট ছোট কাজগুলো দেওয়া হয়ে থাকে।
০২. Picoworkers ওয়েবসাইটের কাজগুলো খুব সহজেই করে ফেলা যায়।
০৩. উক্ত ওয়েবসাইটের কাজগুলো স্মার্টফোন দিয়েও করা সম্ভব।
০৪. Picoworkers ওয়েবসাইটের পেমেন্ট ব্যবস্থা তূলনামূলক অনেক সহজ।
০৫. Picoworkers ওয়েবসাইটে মাত্র ৫ ডলার হলেই উইথড্র করা যায়।
০৬. তারা বিশ্বস্ততার সাথে পেমেন্ট করে থাকে।
০৭. Picoworkers ওয়েবসাইটে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে বিশেষ কোনো দক্ষতার প্রয়োজন নেই।
০৮. নিজে কাজ করার পাশাপাশি রেফার করেও ডলার আয় করার সুযোগ রয়েছে।

Picoworkers ওয়েবসাইট থেকে মোবাইল দিয়ে কীভাবে টাকা ইনকাম করব?

Picoworkers ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের ছোট ছোট কাজ রয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের Employer’রা এই সাইটে এসব জব পোষ্ট করে থাকে।

সাথে কোনো কাজ সঠিকভাবে করতে পারলে কতো ডলার দেওয়া হবে তাও লিখে দেওয়া হয়।

উক্ত সাইটের কাজগুলো হলো: ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করা, ভিডিও দেখা, ভিডিওতে লাইক-কমেন্ট করা, পোস্ট শেয়ার, বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও বিজ্ঞাপন ভিজিট করা, অ্যাকাউন্ট খোলা, অ্যাপ ইন্সটল করা, রিভিউ দেওয়া, ফেসবুক পেইজ লাইক দেওয়া, টুইটারে ফলো করা, বিভিন্ন সার্ভে অংশ নেওয়া, ইত্যাদি ইত্যাদি।

কর্মীরা (Clients) এসব কাজগুলো থেকে তাদের পছন্দ ও সাধ্য অনুযায়ী কাজ করে থাকে। তবে প্রতিটি কাজ সঠিকভাবে হয়েছে কিনা তার জন্য প্রমাণ জমা দিতে হয়।

সঠিকভাবে করতে পারলে কর্মীদের সেই কাজের বিনিময়ে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ প্রদান করা হয়। যা Picoworkers এর Earned অপশনে যোগ হতে থাকে।

নিজে কাজ করার পাশাপাশি রেফার করেও ডলার ইনকাম করার সুযোগ রয়েছে। আপনার রেফার লিংকের মাধ্যমে কেউ যুক্ত হলে তার করা Diposit থেকে এবং কাজ করে অর্জিত অর্থের ৫% কমিশন আপনি পাবেন।

আর এসবের জন্য আপনাকে উক্ত সাইটে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে। অ্যাকাউন্ট তৈরি করার নিয়ম আর্টিকেলের নিচের দিকে পেয়ে যাবেন।

Picoworkers ওয়েবসাইটের পেমেন্ট ব্যবস্থা।

কম্পিউটার কিংবা মোবাইল দিয়ে অনলাইনে টাকা ইনকাম শুরু করার পূর্বে যে সাইটে কাজ করতে যাচ্ছেন সে সাইটের পেমেন্ট ব্যবস্থা সম্পর্কে ভালো ভাবে জেনে নেওয়া উচিৎ।

কারণ অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোতে ক্লায়েন্টদেরকে দিয়ে কাজ করিয়ে নেয় ঠিকই, কিন্তু পারিশ্রমিক হিসেবে কোনো পেমেন্ট দেয় না।

আর দিলেও তাদের সর্বনিম্ন উইথড্র’র পরিমাণ থাকে অনেক বেশি, সে পর্যন্ত যাওয়ার আগেই ক্লায়েন্ট কাজ ছেড়ে দেয়।

আবার অনেক সাইটে থাকে জটিল পেমেন্ট ব্যবস্থা। তাই কাজ শুরুর পূর্বেই পেমেন্ট ব্যবস্থা জেনে নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

Picoworkers‘এ মাত্র ৫ ডলার হলেই উইথড্র করতে পারবেন। আর এর পেমেন্ট ব্যবস্থাও অত্যন্ত সহজ এবং কার্যকরী।

Paypal, Skrill, Litecoin ইত্যাদির মাধ্যমে টাকা উঠানো যায়। Skrill এবং Coinbase এর অ্যাকাউন্ট খোলা খুবই সহজ। তাই আপনি Picoworkers সাইটে নিশ্চিন্তে কাজ করতে পারবেন।

Picoworkers ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম।

Picoworkers.Com এ অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য এখানে ক্লিক করে তাদের ওয়েবসাইটে চলে যান। উক্ত সাইটে প্রবেশ করার পর একটি Disclaimer আসবে, Understood লেখাতে ক্লিক করুন।

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করুন PicoWorkers ওয়েবসাইট থেকে।
মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করুন PicoWorkers ওয়েবসাইট থেকে।

এবং সাইটের উপরে Sign Up লেখার উপর ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করলে নিচের চিত্রের মতো নিবন্ধন ফর্ম চলে আসবে যেখানে নিচে উল্লেখিত তথ্যগুলো দিতে হবে।

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করুন PicoWorkers ওয়েবসাইট থেকে।
মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করুন PicoWorkers ওয়েবসাইট থেকে।

Real Name: এখানে আপনার পুরো নাম দিন।

Email: এখানে আপনার মেইল এড্রেস দিন।

Password: এখানে আপনার পাসওয়ার্ড দিন। পাসওয়ার্ডটি অবশ্যই কমপক্ষে ৮ ক্যারেকটার্স এর হতে হবে এবং যেখানে ইংরেজি ছোট-বড় হাতের অক্ষর, সংখ্যা এবং সাংকেতিক চিহ্ন ব্যবহার করতে হবে।

Nickname: পিকোওয়ার্কারস এর নিক নেইমগুলো ইউনিক হয় অর্থাৎ একই নিকনেইম দুজন ব্যক্তি ব্যবহার করতে পারে না। তাই নিকনেইম বাছাই করার জন্য কিছুটা বেগ পেতে হতে হয়।

এর জন্য বার বার ভিন্ন ভিন্ন ভাবে nick name লিখে চেষ্টা করতে হবে। নিকনেইম বিভিন্নভাবে দিতে পারেন। যেমন ধরুন, আপনার নাম Robin। তাহলে আপনাকে robinbd, robin24, robin2020, robin07 এভাবে চেষ্টা করতে হবে।

Select Country: এখানে আপনার দেশের নাম বাছাই করুন।

এরপর “agree to Pickoworker’s Terms of Service and Privacy Policy.” এবং “Send me news, events and offers via periodic email.” লেখার পূর্বে দুটি বক্সে টিক মার্ক দিয়ে SIGN UP বাটনে ক্লিক করুন।

Sign Up বাটনে ক্লিক করলে আপনার দেওয়া মেইলে একটি Confirmation Link চলে যাবে। তারপর ঐ লিংকে ঢুকে আপনার দেওয়া মেইল ও পাসওয়ার্ড দিয়ে Log In করতে হবে।

তাহলেই আপনার পিকোওয়ার্কারস অ্যাকাউন্টটি ভেরিফাই হয়ে যাবে। এরপর থেকে Picoworkers.Com ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে ছোট ছোট কাজ করে কম্পিউটার কিংবা মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করা শুরু করুন।

Mohammad Robin

আমি মুহাম্মদ রবিন, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।

১ টি মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!