টিকটক

টিকটক আইডি ডিলিট করার নিয়ম।

Close

অতি দ্রুত জনপ্রিয়তা পাওয়া অ্যাপগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো Tiktok অ্যাপ। টিকটক হচ্ছে একটি শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম।

আমরা ভিডিও বানাই বা না বানাই, ভিডিও দেখার জন্য হলেও আমাদের ফোনে টিকটক অ্যাপটি ইনস্টল করে রাখি।

অধিকাংশ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীই টিকটকে ভিডিও দেখে অনেক সময় ব্যয় করে থাকে। টিকটকে ভিডিও দেখতে অ্যাকাউন্ট খোলার বাধ্যবাধকতা নেই।

তবে আপনি যদি ভিডিও তৈরি করতে চান, কাউকে ফলো করতে চান, কারও ভিডিওতে লাইক-কমেন্ট করতে চান তাহলে অবশ্যই টিকটকে একটি অ্যাকাউন্ট থাকা চাই।

টিকটকে অ্যাকাউন্ট খুলতে মোবাইল নাম্বার অথবা ইমেইলের প্রয়োজন হয়। তবে চাইলে জিমেইন, ফেসবুক ও এক্স অ্যাকাউন্ট দিয়েও লগিন করা যায়।

প্রয়োজনে, অপ্রয়োজনে আমরা কখনও কখনও টিকটকে একাধিক অ্যাকাউন্ট তৈরি করে ফেলি।

পরবর্তীতে সেগুলো আর ব্যাবহার করা হয় না। তবে আপনি চাইলে আপনার অব্যবহৃত কিংবা নিজের ব্যবহৃত  টিকটক অ্যাকাউন্ট চিরদিনের জন্য বন্ধ করে দিতে পারেন।

টিকটক আইডি ডিলিট করতে যাওয়ার আগে যা জানা জরুরী।

  • টিকটক আইডি ডিলিট করলে আইডির সকল ডাটা ডিলিট হয়ে যাবে। যা আর কখনও ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে না। এরফলে আপনাকে আর কেউ খোজে পাবে না।
  • আপনার ভিডিও, অন্যের ভিডিওতে করা আপনার লাইক-কমেন্ট, কারো সাথে করা ম্যাসেজসহ সবকিছুই চিরদিনের জন্য ডিলিট হয়ে যাবে।
  • টিকটক আইডি ডিলিট করা খুবই সহজ।
  • কিন্তু আপনি আজকে যদি আপনার টিকটক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার জন্য রিকোয়েস্ট করেন তাহলে ৩০ দিনের ভেতর সে আইডি আর লগিন করতে পারবেন না।
  • তবে, ৩০ দিনের ভেতর লগইন করলে ডিলিট হওয়ার কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাবে।
  • আর যদি পরবর্তী ৩০ দিন লগিন না করে এই অবস্থায় রেখে দেন তাহলে ৩০ দিন পর পার্মানেন্ট ভাবে সেটি ডিলিট হয়ে যাবে তখন চাইলেও আপনি সে আইডি লগিন করতে পারবেন না।
  • তবে ঐ একই নাম্বার/ইমেইল দিয়ে পরবর্তীতে আরেকটি নতুন টিকটক আইডি খুলতে পারবেন।

টিকটক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম।

আপনার ব্যবহৃত টিকটক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার জন্য আপনার মোবাইল ফোনে থাকা Tiktok অ্যাপ্লিকেশনটিতে প্রবেশ করুন। এবং নিচে দেওয়া নির্দেশনাগুলো হুবুহু অনুসরণ করুন।

০১. Tiktok অ্যাপ্লিকেশনটিতে প্রবেশ করার পর টিকটকের মেনু বারে কয়েকটি আইকন দেখতে পাবেন। যেমন: Home, Inbox, Profile ইত্যাদি।

আপনি এখানে থাকা Profile আইকনে চলে যান। যেটি মেনুবারের একদম বাম পাশে রয়েছে।

টিকটক সেটিংস

০২. আপনার টিকটক প্রফাইলে প্রবেশ করার পর সবার উপরে ডান পাশে তিনটি রেখা দেখতে পাবেন আপনি তাতে ক্লিক করুন।

টিকটক সেটিংস

০৩. সবার উপরে ডান পাশে তিনটি রেখায় ক্লিক করলে আপনার সামনে কয়েকটি অপশন এসে হাজির হবে। সেখান থেকে আপনি “Settings and privacy” লেখা অপশনে প্রবেশ করুন।

টিকটক সেটিংস

০৪. “Settings and privacy”-তে প্রবেশ করার পর আপনি আরো অনেক অপশন দেখতে পাবেন, যেগুলো দেখার প্রয়োজন নেই আপনার।

আপনি শুধুমাত্র সবার উপরে থাকা Account লেখা অপশনে প্রবেশ করুন। যার ভেতর আপনি আপনার অ্যাকাউন্টের সকল সেটিংস পেয়ে যাবেন।

টিকটক সেটিংস

০৫. নীচে স্ক্রোল করুন এবং “Deactivate or delete account” লেখা অপশনে আলতো চাপুন।

টিকটক সেটিংস

০৬. পরবর্তী পেইজে “Deactivate Account” এবং “Delete account permanently” নামের দুটি অপশন দেখতে পাবেন।

টিকটক আইডি ডিলিট করতে “Delete account permanently” লেখা অপশনে প্রবেশ করুন।

টিকটক আইডি ডিলিট করার নিয়ম

০৭. পরবর্তী পেইজে আপনি আপনার টিকটক অ্যাকাউন্টটি কেন ডিলিট করবেন তার কারণ জানতে চাওয়া হবে।

আপনার উপযুক্ত কারণটি নির্বাচন করে Continue করুন অথবা উপরে ডান পাশের Skip লেখা অপশনে ক্লিক করে বিষয়টি এড়িয়ে যেতে পারেন।

টিকটক আইডি ডিলিট করার নিয়ম

০৮. এরপরের ধাপ থেকে আপনি চাইলে আপনার টিকটক অ্যাকাউন্টের ডেটা ডাউনলোড করে রাখতে পারেন।

পেইজটিতে থাকা Continue বাটনে ক্লিক করুন তবে তার পূর্বে উপরের চেকবক্সটি মার্ক করে নিতে ভুলবেন না।

টিকটক আইডি ডিলিট করার নিয়ম

০৯. পরবর্তী ধাপেও Continue বাটনে ক্লিক করুন।

১০. এরপর আপনার কাছে আপনার টিকটক অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড চাওয়া হবে আপনি তা দিয়ে “Delete Account” বাটনে ক্লিক করুন।

১১. পরবর্তী এবং সর্বশেষ ধাপে আপনার কাছে জানতে চাওয়া হবে আপনি সত্যিই আপনার টিকটক আইডি চিরদিনের জন্য ডিলিট করতে চান কিনা।

নিচে Cancel এবং Delete নামে দুটি অপশন আপনাকে দেওয়া হবে। আপনি Delete লেখা অপশনে ক্লিক করলেই আপনার অ্যাকাউন্টটি লগআউট হয়ে যাবে।

তবে এই আইডি ২য় বার ভুলেও লগিন করবেন না। ৩০ দিনের ভেতর লগইন করলে ডিলিট হওয়ার কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাবে।

আর যদি পরবর্তী ৩০ দিন লগিন না করে এই অবস্থায় রেখে দেন তাহলে ৩০ দিন পর পার্মানেন্ট ভাবে সেটি ডিলিট হয়ে যাবে তখন চাইলেও আপনি সে আইডি লগিন করতে পারবেন না।

50% LikesVS
50% Dislikes

Robin Miah

আমি রবিন মিয়া, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!