হোয়াটসঅ্যাপ

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস কী? কীভাবে অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়?

প্রিয় পাঠক, আজকের এই আর্টিকেলে আমরা হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাকাউন্ট কী, হোয়াটসঅ্যপ বিজনেস একাউন্ট এর সুবিধা ও ফিচারসমূহ এবং কীভাবে হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপে একটি অ্যাকাউন্ট খুলা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস কী?

ম্যাসেজিং অ্যাপ হিসেবে বর্তমানে হোয়াটসঅ্যাপ অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি অ্যাপ। প্রতিদিন ২ বিলিয়নের অধিক হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী ৬৫ বিলিয়নের অধিক মেসেজ পাঠিয়ে থাকেন।

আর বিশাল এই মেসেজিং প্ল্যাটফর্মের বিজনেস ভার্সন হলো হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস।

হোয়াটসঅ্যপ বিজনেস হলো একটি ওটিটি (ওভার-দ্যা-টপ) চ্যাট অ্যাপ, যা ব্যক্তিগত মেসেজিং এর সাথে কাস্টমার কমিউনিকেশনকে একসাথে যুক্ত করে।

৫ মিলিয়নের অধিক বিজনেস ইউজার প্রতিদিন এই মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে থাকে। ওটিপি মেসেজিং অ্যাপগুলো হলো মূলত টেক্সট মেসেজিং সার্ভিসের বিকল্প, যা কাস্টমার ও সার্ভিস প্রোভাইডারকে যোগাযোগে সাহায্য করে।

হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে কম খরচে যেকোনো ডিভাইসে যোগাযোগ করা যায়, যা ব্যবসায়িক যোগাযোগে ব্যবহারের জন্য হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেসকে আদর্শ মাধ্যমে পরিণত করে।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস (WhatsApp Business) একটি বিনামূল্যের ডাউনলোড অ্যাপ, যা Android এবং iPhone-এ উপলব্ধ, এবং ছোট ব্যবসার মালিকদের কথা মাথায় রেখে এটি তৈরি করা হয়েছে৷

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপ স্বয়ংক্রিয়, বাছাই এবং বার্তাগুলোতে দ্রুত প্রতিক্রিয়া দেওয়ার জন্য টুল সরবরাহ করে গ্রাহকদের সাথে যোগাযোগ সহজ করে তোলে।

এটি ব্যবহারে হোয়াটসঅ্যাপ মেসেঞ্জারের মতো ফিল করতে পারবেন। মেসেজিং থেকে শুরু করে ফটো পাঠানো পর্যন্ত এবং আপনি যা যা করতে অভ্যস্ত সবকিছু করতে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারেন।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপটিতে বর্তমানে যে সুবিধাগুলো রয়েছে:

বিজনেস প্রফাইল: একটি কোম্পানির ঠিকানা, ইমেল এবং ওয়েবসাইটের মতো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তালিকাভুক্ত করার জন্য ব্যবসায়িক প্রোফাইল।

লেবেলস: আপনার চ্যাট এবং বার্তাগুলোকে সংগঠিত করতে এবং সহজেই খুঁজে পেতে লেবেল ব্যবহার করতে পারবেন৷

সহজ যোগাযোগ: গ্রাহকদের সাথে ব্যক্তিগত পর্যায়ে যোগাযোগের পথ খুলে দেয় হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস, যা গ্রাহক ও ব্র‍্যান্ড উভয়ের জন্য সংযোগ স্থাপনের বিষয়টিকে সহজ করে দেয়।

ব্যবহারে নিরাপদ: হোয়াটসঅ্যাপে থাকা এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন সেবার বদৌলতে কাস্টমার ও ব্র‍্যান্ড এই প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহারে নিরাপদ থাকতে পারেন।

এছাড়া বিজনেস একাউন্ট রেজিস্ট্রেশনের সময় ভেরিফাই করে হোয়াটসঅ্যাপ, যাতে কাস্টমারকে আপনার পরিচয় সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা দেওয়া যায়।

ম্যাসেজিং টুলস: গ্রাহকদের দ্রুত সাড়া দেওয়ার জন্য রয়েছে ম্যাসেজিং টুলস।

আপনি যদি ব্যবসা না করেন তবে এই আলাদা অ্যাপটি ডাউনলোড করার দরকার নেই। বন্ধু, পরিবার এবং আত্নীয়দের সাথে কথা বলার জন্য আপনি বিনামূল্যে আপনার WhatsApp মেসেঞ্জার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার চালিয়ে যেতে পারেন।

তবে আপনার যদি কোনো ব্যবসা থেকে থাকে, হোক সেটা বড় কিংবা ছোট, তাহলে আমি আপনাকে পরামর্শ দিব আপনি আপনার ফোনের সাধারণ WhatsApp রেখে, কিংবা এটার পাশাপাশি WhatsApp Business অ্যাপ ডাউনলোড করে ব্যবহার করার জন্য।

এতে আপনি আপনার কাস্টমারদের সাথে সহজেই যোগাযোগ করতে পারবেন এবং আপনার ব্যবসার পরিধি আরও বাড়াতে পারবেন।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপে কীভাবে অ্যাকাউন্ট খুলবেন?

০১. WhatsApp Business অ্যাপ ডাউনলোড করুন।
WhatsApp Business অ্যাপটি Google Play Store এবং Apple App Store থেকে বিনামূল্যে ডাউনলোড করা যায়।

WhatsApp Business লিখে খোঁজ করলেই অ্যাপটি পেয়ে যাবেন। সেখান থেকে ডাউনলোড করে অ্যাপটিতে প্রবেশ করুন।

০২. পরিষেবার শর্তাবলী পর্যালোচনা করুন:
হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস পরিষেবার শর্তাবলী পড়ুন, তারপর শর্তাবলী মেনে নিতে Agree and Continue-এ ট্যাপ করুন।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাকাউন্ট

০৩. মোবাইল নাম্বার দিন:
আপনার দেশের কোড যোগ করতে ড্রপ-ডাউন তালিকা থেকে আপনার দেশ নির্বাচন করুন, তারপরে আন্তর্জাতিক ফোন নম্বর বিন্যাসে আপনার ফোন নম্বর লিখুন।

Done বা Next ট্যাপ করুন, তারপরে এসএমএস বা ফোন কলের মাধ্যমে আপনার ৬ সংখ্যার রেজিস্ট্রেশন কোড পেতে Ok ট্যাপ করুন।

নিবন্ধন সম্পূর্ণ করতে, আপনার ৬ সংখ্যার কোড লিখুন। যা আপনাকে এসএমএস বা ফোন কলের মাধ্যমে জানানো হবে।

০৪. কন্টাক্ট এবং মিডিয়ার অনুমতি দিন:
আপনার ফোনের এড্রেস বুক থেকে WhatsApp Business অ্যাপে কন্টাক্টগুলো যোগ করা যেতে পারে।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাকাউন্ট

এছাড়াও আপনি আপনার ফোনের ফটো, ভিডিও এবং ফাইলগুলিতে অ্যাক্সেসের অনুমতি দিতে পারেন।

০৫. অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন:

আপনার ব্যবসার নামটি পূরণ করুন, একটি ব্যবসার বিভাগ নির্বাচন করুন এবং প্রোফাইলে একটি ছবি যোগ করুন।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাকাউন্ট
০৬. আপনার ব্যবসার প্রোফাইল তৈরি করুন: Explore > Business Profile-এ ট্যাপ করুন। এখানে, আপনি গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক তথ্য যেমন: আপনার ব্যবসার ঠিকানা, বিবরণ, সময় এবং আরও অনেক কিছু যোগ করতে পারেন।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস টুলস ব্যবহার করুন।

হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপে আপনাকে দক্ষতার সাথে ব্যবসা চালাতে সাহায্য করার জন্য বেশ কিছু টুল রয়েছে। যেমন-

ক্যাটালগ (Catalog): আপনার বিজনেস অ্যাকাউন্টের মধ্যে আপনার পণ্য এবং পরিষেবাগুলো দেখান এবং শেয়ার করুন।

সংক্ষিপ্ত লিঙ্ক (Short Link): নতুন গ্রাহকদের আপনার সাথে সংযোগ করা সহজ করুন। নতুন গ্রাহকদের সাথে স্বয়ংক্রিয়ভাবে তৈরি সংক্ষিপ্ত লিঙ্ক শেয়ার করুন যাতে তারা আপনার ব্যবসার বার্তা পাঠাতে সক্ষম হয়।

মেসেজিং টুল (Messaging Tool): আগে থেকেই মূল কথোপকথন তৈরি করতে WhatsApp মেসেজিং টেমপ্লেট ব্যবহার করুন। নতুন গ্রাহকদের সাথে জড়িত থাকার জন্য স্বয়ংক্রিয় শুভেচ্ছা বার্তা তৈরি করুন।

আপনি কখন ফিরে আসবেন তা গ্রাহকদের জানানোর জন্য বার্তাগুলো সেট করুন বা প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য দ্রুত উত্তর তৈরি করুন।

লেবেলস (Lebels): গ্রাহকদের সাথে আপনার কথোপকথনগুলিকে সহায়ক বিভাগে সাজান। যেমন, “New Customers” বা “Pending Customers” ইত্যাদি।

এছাড়াও হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাপে রয়েছে নানা ধরনের ফিচার। যেগুলো ব্যবহার করে আপনি আপনার ব্যবসার পণ্য এবং সেবা সমূহ খুব সহজেই কাস্টমারের নিকট পৌছাতে পারবেন। এসব বিষয় হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাকাউন্ট খোলার পর নিজের ধীরে ধীরে জানতে পারবেন।

Mohammad Robin

আমি মুহাম্মদ রবিন, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!