ফেসবুক টিপস

ফেসবুকে বন্ধুদের বিরক্তিকর স্টোরি থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়।

ফেসবুক টিপস এবং ট্রিকস ২০২২- ফেসবুক হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। যতো দিন যাচ্ছে এর জনপ্রিয়তা আরো ততো বেশি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ফেসবুক ব্যবহার করেনা এমন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী খুজে পাওয়া দুষ্কর। ফেসবুক তাদের জনপ্রিয়তা ধরে রাখার জন্য প্রতিনিয়ত বিভিন্ন নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করে চলেছে।

ফেসবুকের অসংখ্য ফিচারের মধ্যে Story বা My Day হচ্ছে বহুল ব্যবহৃত একটি ফিচার।

যেখানে ফেসবুক ব্যবহারকারী ছবি, ভিডিও, লেখা কিংবা লিংক শেয়ার করতে পারে। যা ২৪ ঘন্টা দেখানো হয়ে থাকে।

মাই ডে’র পোস্টে করা কমেন্টগুলো কেবল মাত্র আপলোড কারিই দেখতে পারে।

তবে আমাদের ফ্রেন্ড লিষ্টে অনেকেই আছে যারা একই পোস্ট ফেসবুক টাইম লাইনে এবং একই সাথে মাই ডে’তেও শেয়ার করে, আবার কেউ কেউ এতো বেশি ছবি বা ভিডিও আপলোড করে যে তা দেখতে দেখতে ফ্রেন্ড লিষ্টে থাকা বন্ধুরা বিরক্ত বোধ করে।

আবার অনেকেই তো টিকটক ভিডিও, লাইকি ভিডিও দিয়ে অবস্থা খারাপ করে দেয়।

আর লাইক বা ফলো করা কিছু কিছু ফেসবুক পেইজও আছে এমন যারা অত্যাধিক স্টোরি আপলোড করে।

আজকের পোস্টে আমরা শিখবো কীভাবে এসব বিরক্তিকর ফেসবুক স্টোরি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

অর্থাৎ যারা এমন অপ্রয়োজনীয় ও মাত্রাতিরিক্ত স্টোরি শেয়ার করে তাদের ফেসবুক স্টোরিগুলো কিভাবে Mute করে রাখবেন। আবার প্রয়োজনে কিভাবে তা Unmute করবেন।

বন্ধুদের বিরক্তিকর ফেসবুক স্টোরি থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়।

আপনি যদি আপনার কোনো বন্ধুর ফেসবুক স্টোরি দেখতে না চান তাহলে সে যখন কোনো স্টোরি শেয়ার করবে তখন সেই স্টোরি ভিউ করে দেখুন।

তারপর সবার উপরের ডান পাশে থ্রি ডট (…) অপশন দেখতে পাবেন তাতে ক্লিক করুন।

এরপর “Mute ____’s Story” লেখায় ক্লিক করুন। (‘___’ এই যায়গায় আপনার সেই বন্ধুটির নাম লিখা থাকবে।)
তারপর Mute করে দিন।

এভাবে একবার মিউট করে দিলে আপনার সেই ফ্রেন্ড যতো স্টোরি আপলোড দিক না কেন তা আর আপনাকে দেখানো হবেনা।

যদি তাদেরকে আবার পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে চান তাহলে তাদেরকে Unmute করতে হবে।

Mute থেকে Unmute করবেন যেভাবেঃ-

আপনার ফেসবুক সেটিংস এ যান।

তারপর ‘Story Settings’ এ প্রবেশ করুন।

আপনি যাদেরকে Mute করে রেখেছেন তাদেরকে দেখতে ‘Stories You Muted’ লেখায় ক্লিক করুন।

আপনি যাদের স্টোরিগুলো মিউট করে রেখেছেন তাদের আনমিউট করতে নামের পাশে Unmute লেখায় ক্লিক করে দিন।

আর আনমিউট করার পর আপনি আগেই মতোই তার স্টোরিগুলো দেখতে পারবেন।
ধন্যবাদ।

Mohammad Robin

আমি মুহাম্মদ রবিন, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।

এ সম্পর্কিত আরো পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!