ব্লগিং টিপস

ব্লগের পোস্ট ইউনিক কিনা তা চেক করার উপায়। | কপিরাইট কন্টেন্ট চেক করার উপায়।

কপিরাইট কন্টেন্ট চেক করার উপায়- প্রযুক্তি প্রিয়’র আজকের এই পোস্টে আমি আপনাদের জানাতে চলেছি ব্লগে লেখা কন্টেন্ট ইউনিক কিনা তা চেক করার নিয়ম।

আমরা যারা ব্লগার রয়েছি তারা সবাই জানি আমাদের ব্লগ ওয়েবসাইটের জন্য লেখা কন্টেন্টগুলো অবশ্যই ইউনিক হতে হয়।

তাই আমরা নিজেরা যখন কন্টেন্ট লিখি, সব সময় চেষ্টা করি তা যেন শতভাগ ইউনিক হয়। তবে আমরা কখনো কখনো আমাদের ব্লগের কন্টেন্টগুলো অন্য কোনো কন্টেন্ট রাইটার দিয়ে লিখিয়ে নেই।

তবে তাদের লেখা কন্টেন্ট কতটা ইউনিক হয় তা কিন্তু আমরা জানি না। তাই অনেকের মনেই প্রশ্ন থাকতে পারে, তাদের লেখা ব্লগের পোস্ট ইউনিক কিনা তা চেক করার উপায় কী?

আজকের এই পোস্টে আপনি “ব্লগের আর্টিকেল কপিরাইট কিনা তা চেক করার নিয়ম” জানতে চলেছেন।

আশা করি, তা আপনাদের অনেক উপকারে আসবে। তবে যারা নতুন ব্লগার রয়েছেন তাদের মনে আরো প্রশ্ন থাকতে পারে।

যেমন, ইউনিক কন্টেন্ট কী? প্লাগারিজম কন্টেন্ট কী? ব্লগে কপি পোস্ট করলে সমস্যা হবে কিনা? ইউনিক কন্টেন্ট চেক করার উপায় কী? ইত্যাদি।

আর এসকল প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন আজকের এই পোস্ট থেকে।

প্লাগারিজম কন্টেন্ট কী?

প্লাগারিজম হচ্ছে কোনো ওয়েবসাইটের কনটেন্ট থেকে সম্পূর্ণ বা আংশিক কপি করে অন্য আরেকটি ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা।

আর ইউনিক কন্টেন্ট হবে সম্পূর্ণ আপনার লেখা অন্য কোনো সাইট থেকে কপি করা নয়।

তবে কখনো কখনো নিজের লেখা কন্টেন্টের কিছু অংশ অন্য কোনো ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট এর সাথে অনিচ্ছাকৃত ভাবেও মিলে যেতে পারে।

তাই কোনো কন্টেন্ট ওয়েবসাইটে প্রকাশ করার পূর্বে একবার চেক করে নেওয়া জরুরি। বিশেষ করে আপনি যদি ২য় কোনো ব্যক্তিকে দিয়ে কন্টেন্ট লিখিয়ে নেন।

ব্লগ ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট ইউনিক কিনা তা চেক করে নেওয়া কতোটা জরুরি?

ব্লগের কোনো পোস্ট প্রকাশ করার পূর্বে তা ইউনিক কিনা চেক করার বেশি কিছু গুরুত্বপূর্ণ কারণ রয়েছে।

কারণ কপি করা পোস্ট সাইটে প্রকাশ করলে আপনাকে বেশ কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে যা নিচে তুলে ধরলাম।

০১. আপনার ব্লগ সাইটে যদি এডসেন্স যোগ করতে চান তাহলে কখনোই কোনো কন্টেন্ট কপি করবেন না। কারণ কপি করা কন্টেন্ট দিয়ে গুগল এডসেন্স পাবেন না।

০২. কপি করা পোস্ট বা কন্টেন্ট গুগলে কখনো র‍্যাংক করবে না। যদিওবা কখনো করে তবে গুগলের নজরে পড়লে আপনার সাইটের ঠ্যাং ভেঙে দিবে মানে পেনাল্টি দিয়ে দিবে। জানেন তো, চুরের দশ দিন আর গৃহস্থের এক দিন।

০৩. আপনার সাইটে এডসেন্স যোগ করা থাকলে কপি কন্টেন্ট প্রকাশ করার কারণে যেকোনো সময় তা বাতিল হতে পারে। তাই সাবধানতা অবলম্বন করুন।

০৪. কপি কন্টেন্ট আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটরের উপর এটি খারাপ প্রভাব ফেলবে। তাই অন্যের কন্টেন্ট কপি না করে নিজের কন্টেন্ট রাইটিং স্কিল ডেভেলপ করেন।

কন্টেন্ট চেক করার জন্য অনলাইনে বিভিন্ন “ইউনিক কন্টেন্ট চেক করার ওয়েবসাইট এবং টুলস” রয়েছে।

তবে তার বেশিরভাগই পেইড। আর যেসকল ফ্রী প্লাগারিজম চেকার ওয়েবসাইট এবং টুলস রয়েছে তার বেশিরভাগই আবার সঠিক ভাবে কাজ করে না।

তবে আজকে ব্লগের পোস্ট কপিরাইট কিনা তা চেক করার একটি ফ্রি ওয়েবসাইট এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিব।

যা দিয়ে আপনি নিশ্চিন্তে চেক করে নিতে পারেন। আর কথা না বাড়িয়ে চলুন জেনে নেওয়া যাক, “কিভাবে বুঝব আমার ব্লগে লেখা কন্টেন্ট ইউনিক কিনা?”

ব্লগের পোস্ট ইউনিক কিনা তা চেক করার উপায়। | কপিরাইট কন্টেন্ট চেক করার উপায়।

ধাপ-১: প্রথমে চেক করতে চাওয়া লেখাটি Copy করে নিন।

তারপর আপনার কম্পিউটার কিংবা মোবাইল থেকে যেকোনো ব্রাউজার ওপেন করে Small Seo tools এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।

ধাপ-২: উক্ত ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর নিচের চিত্রের মতো একটি বড় বক্স দেখতে পাবেন। এবার আপনার কপি করা লেখাগুলো উক্ত বাক্সে Paste করে দিন।

ব্লগে লেখা কন্টেন্ট ইউনিক কিনা তা চেক করার নিয়ম

তবে উক্ত ওয়েবসাইটে একসাথে সর্বোচ্চ ১০০০ শব্দের আর্টিকেল চেক করতে পারবেন। এর বেশি নয়।

লেখাগুলো Paste করে একটু নিচের দিকে আসলেই নিচের চিত্রের মতো কিছু অপশন দেখতে পাবেন।

ব্লগে লেখা কন্টেন্ট ইউনিক কিনা তা চেক করার নিয়ম

ধাপ-৩: “I am not a robot” লেখা অপশনটি মার্ক করে Check Plagiarism লেখায় ক্লিক করুন। Check Plagiarism লেখায় ক্লিক করলেই আপনার লেখাগুলো চেক হতে শুরু করবে।

শতভাগ চেক না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তাহলে বুঝতে পারবেন আপনার কন্টেন্টটি কতো শতাংশ ইউনিক আর কতো শতাংশ কপি বা অন্য সাইটের সাথে মিল রয়েছে।

ব্লগে লেখা কন্টেন্ট ইউনিক কিনা তা চেক করার নিয়ম

তাছাড়াও উক্ত রিপোর্টটি Sentence Wise Result, Document View এবং Matched Sources তিন ভাবে ভিউ করে দেখতে পারেন।

আরো দেখতে পারবেন কোন কোন বাক্য ইউনিক আর কোন কোন বাক্য প্লাগারিজম বা কপি।

Plagiarism বাক্যগুলো কোন ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট এর সাথে মিলে গেছে তা দেখার জন্য Compare লেখায় ক্লিক করতে হবে।

ব্লগে লেখা কন্টেন্ট ইউনিক কিনা তা চেক করার নিয়ম

ওয়েবসাইটের প্লাগারিজম কনটেন্ট চেক করার জন্য আরো কিছু জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হলো:
1. PlagiarismDetector.Net
2. DupliChecker.Com
3. PlagiarismChecker.Co
4. Check-Plagiarism.Com

পরিশেষে একটি কথা বলতে চাই তা হলো, আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটে কখনো কপি করা কন্টেন্ট প্রকাশ করবেন না।

কপি করা কন্টেন্ট নিয়ে না পারবেন সাইট এগিয়ে নিতে, না পারবেন নিজে কিছু শিখতে।

আপনার লেখা কন্টেন্ট যেমনই হোক না কেন আপনি যদি নিয়মিত লেখা চালিয়ে যান তাহলে একটা সময় আপনিও অনেক ভালো কন্টেন্ট লিখতে পারদর্শী হবেন। ধন্যবাদ।

Mohammad Robin

আমি মুহাম্মদ রবিন, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।

এ সম্পর্কিত আরো পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!