রিভিউ

নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ ২০২৩ | Nokia বাটন মোবাইল প্রাইস বাংলাদেশ 2023

বাংলাদেশে নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম ২০২৩।

ফিচার ফোনগুলোর মাঝে নোকিয়া মোবাইল ফোন সবথেকে সেরা এবং জনপ্রিয়। আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের সাথে নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম ২০২৩ নিয়ে আলোচনা করবো।

নোকিয়া ফিচার মোবাইলের মাঝে এমন কিছু ফোন রয়েছে, যেগুলোকে মানুষ ইটের সাথে তুলনা করে। কারণ, নোকিয়ার এই মোবাইলগুলোর বিল্ড কোয়ালিটি অনেক ভালো।

আমাদের সকলের কাছেই স্মার্টফোনের পাশাপাশি একটি করে ফিচার ফোন থাকে। আবার অনেকেই স্মার্টফোনের পাশাপাশি একটি করে ফিচার বাটন ফোন রাখতে চায়।

এই ফোনগুলো অনেক সময় প্রয়োজন হয়। একাধিক সিম ব্যবহার করতে অনেক সময় অনেকে এমন করে থাকে।

আপনি যদি একটি ফিচার বাটন ফোন কিনতে চান, তবে নোকিয়া বাটন মোবাইল কিনতে পারেন। নোকিয়া বাটন মোবাইল দাম একেক রকম হয়ে থাকে।

অনেকেই গুগলে এসে সার্চ করে থাকে, বাটন মোবাইলের দাম কত? আপনারা যেন ঘরে বসেই নকিয়া বাটন মোবাইল এর দাম ২০২৩ সম্পর্কে জানতে পারেন, তাই এই আর্টিকেল।

তো চলুন, কিছু নোকিয়া বাটন মোবাইল প্রাইস বাংলাদেশ ২০২৩ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

বাংলাদেশে নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম ২০২৩।

বাংলাদেশে অনেক নোকিয়া বাটন মোবাইল পাওয়া যায়। নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম অন্যান্য ফোনের থেকে একটু বেশি হয়ে থাকে।

কারণ, নোকিয়া মোবাইলগুলোর কোয়ালিটি অনেক ভালো হয়ে থাকে। আপনি যদি নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ ২০২৩ সম্পর্কে জানতে চান, তবে নিচে থেকে বিভিন্ন মডেলের Nokia বাটন ফোনের দাম বাংলাদেশ ২০২৩ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিতে পারবেন।

✬ Nokia 3310

নোকিয়া ৩৩১০ বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ

Nokia 3310 মডেলের মোবাইলটি বাংলাদেশে প্রায় যেকোনো মোবাইল দোকানে পেয়ে যাবেন।

এই মোবাইলটির দাম হচ্ছে, ৪ হাজার ৪০০ টাকা। অনেকেই হয়তো বলবে, বাটন মোবাইলের আবার এতো দাম! এই মোবাইলটির দাম বেশি হওয়ার কারণ হচ্ছে, বিল্ড কোয়ালিটি, এবং অন্যান্য ফিচার।

নোকিয়া Nokia 3310  মডেলের মোবাইলে আপনি নেটওয়ার্ক হিসেবে পেয়ে যাবেন ৪জি। 4g বাটন মোবাইল দেখাই যায় না, কিন্তু নোকিয়ার এই মডেলে রয়েছে ৪জি ইন্টারনেট সুবিধা।

মোবাইলটিতে ডুয়াল সিম সাপোর্ট করে। মোবাইলটি বাজারে ৪টি কালারে পেয়ে যাবেন। ধূসর, নীল, লাল, হলুদ কালারে এই মোবাইলটি কিনতে পাবেন।

মোবাইলের পিছনে রয়েছে ২ মেগাপিক্সেল এর একটি ক্যামেরা। সঙ্গে রয়েছে ফ্ল্যাশ লাইট। মোবাইলটিতে ২.৪ ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে পাবেন।

অডিও হিসেবে শুধু mp3 অডিও ফাইল এবং ভিডিও হিসেবে mp4 ও 3gp ফাইল ব্যবহার করা যাবে। নোকিয়া 3310 মোবাইলটিতে আপনি র‍্যাম হিসেবে ১৬ এমবি র‍্যাম পাবেন। এক্সটারনাল মেমোরি হিসেবে ৩২ জিবি অব্দি ইউজ করতে পারবেন।

Nokia 3310 features:

  • ডিসপ্লে 2.4 ইঞ্চি 240*320 রেজুলেশনের।
  • 1200 mAh ব্যাটারি।
  • 4G Network।
  • ফোনবুক,ইন্টারনেট, ফ্লাসলাইট,গেম এবং কল রেকর্ডার ফিচার।
  • 2 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • 16 এমবি র‍্যাম।
  • জাভা নেই।

Nokia 5310

নোকিয়া ৫৩১০ বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ

সেরা নোকিয়া বাটন মোবাইলগুলোর তালিকা করলে এই মোবাইলটি শীর্ষে থাকবে। এই নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম হচ্ছে ৪,০৯৯ টাকা।

আপনি যদি মোবাইলটি কিনতে চান, তবে যেকোনো মোবাইলের দোকান থেকে কিনতে পারবেন। মোবাইলটির বিল্ড কোয়ালিটি অনেক সুন্দর।

এই মোবাইলে আপনি নেটওয়ার্ক হিসেবে পাবেন ২জি নেটওয়ার্ক। মোবাইলে ডুয়াল সিম সাপোর্ট করে।

মোবাইলটিতে ডিসপ্লে রয়েছে 2.4 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 240*320 রেজুলেশনের একটি ডিসপ্লে। এছাড়াও, মোবাইলের পিছনে একটি ক্যামেরা পেয়ে যাবেন যেটি 0.3 মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা।

ক্যামেরার সঙ্গে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশ লাইট। অডিও হিসেবে শুধু mp3 অডিও ফাইল এবং ভিডিও হিসেবে mp4 ও 3gp ফাইল ব্যবহার করা যাবে।

নোকিয়া 3310 মোবাইলটিতে আপনি র‍্যাম হিসেবে ৮ এমবি র‍্যাম ও ইন্টারনাল স্টোরেজ হিসেবে ১৬ এমবি স্টোরেজ পাবেন। এক্সটারনাল ম্যামোরি হিসেবে ৩২ জিবি অব্দি ইউজ করতে পারবেন।

মোবাইলটিতে রয়েছে 1200 mAh এর একটি ব্যাটারি। যা আপনাকে ২২ ঘণ্টা অব্দি কলিং ব্যাকাপ দিতে সক্ষম। নোকিয়ার এই মোবাইলটি আপনি দুইটি কালারে পেয়ে যাবেন। একটি হচ্ছে সাদা এবং অপরটি কালো।

Nokia 5310 মোবাইলের ফিচার :

  • 2.4 ইঞ্চি 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।
  • 1200 mAh ব্যাটারি।
  • 2G নেটওয়ার্ক।
  • ফোনবুক, ইন্টারনেট, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার, এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস।
  • 0.3 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।
  • ৮ এমবি র‍্যাম।
  • জাভা সাপোর্টেড নয়।

✬ Nokia 105

নোকিয়া ১০৫ বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ

অনেকেই নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশে কত টাকা জানার জন্য সার্চ দিয়ে থাকে।

কেউ ৫০০ টাকায় বাটন মোবাইল খুঁজে থাকেন। কিন্তু, অল্প দামে ভালো নোকিয়া মোবাইল খুঁজে পায় না। তাদের জন্য রয়েছে Nokia 105 মডেলের এই মোবাইলটি।

নোকিয়ার অন্যান্য মোবাইলের মতো এই মোবাইলটির বিল্ড কোয়ালিটি অনেক সুন্দর। কমদামি নোকিয়া মোবাইলগুলোর মাঝে এই মোবাইলটি সবথেকে সেরা।

এই নোকিয়া বাটন মোবাইল প্রাইস বাংলাদেশ এ ১,৪৯৯ টাকা। দেড় হাজার টাকায় আপনি যেকোনো মোবাইলের দোকান থেকে নোকিয়া কোম্পানির এই ফিচার বাটন মোবাইলটি কিনতে পারবেন।

Nokia 105 মডেলের এই মোবাইলটিতে আপনি ডিসপ্লে হিসবে পাবেন, 1.7 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 120*160 রেজুলেশনের ডিসপ্লে। তবে, মোবাইলের সামনে কিংবা পিছনে কোনো ক্যামেরা নেই।

মোবাইলটিতে আপনি এসএমএস এবং এমএমএস সুবিধা পাবেন। এছাড়াও, আরেকটি বিষয় হচ্ছে, এই মোবাইলটিতে আপনি কোনো ধরণের অডিও এবং ভিডিও চালাতে পারবেন না। মোবাইলটি দিয়ে শুধু কল এবং ম্যাসেজ আদান-প্রদান করতে পারবেন।

Nokia 105 মডেলের এই মোবাইলটিতে ৪ এমবি র‍্যাম এবং ৪ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে। এছাড়া, আপনি এই ফোনে কোনো মেমরি কার্ড লাগাতে পারবেন না।

নোকিয়ার এই মোবাইলে আপনি ব্যাটারি হিসেবে পাবেন 800 mAh এর একটি ব্যাটারি। যা আপনাকে ১৪ ঘণ্টার অধিক সময় অব্দি কলিং ব্যাকাপ দিতে সক্ষম। মোবাইলটি তিনটি কালারে (কালো, নীল, গোলাপী) বাজারে পাওয়া যাবে।

Nokia 105 features:

  • 1.7 ইঞ্চি 120*160 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।
  • 800 mAh ব্যাটারি।
  • 2G Network।
  • ফোনবুক,  ইন্টারনেট, ফ্লাসলাইট, কল রেকর্ডার এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস।
  • ৪ এমবি র‍্যাম ও ৪ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।
  • জাভা সাপোর্ট যোগ্য নয়।

✬ Nokia 110

নোকিয়া ১১০ বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ

Nokia 110 মডেলের নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম হচ্ছে বাংলাদেশে ২,১৪৯ টাকা। এই মোবাইলে রয়েছে 1.7 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 120*160 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।

মোবাইলটিতে কোনো ক্যামেরা পাবেন না। অডিও হিসেবে শুধু mp3 অডিও ফাইল এবং ভিডিও হিসেবে mp4 ও 3gp ফাইল ব্যবহার করা যাবে।

নোকিয়া 3310 মোবাইলটিতে আপনি র‍্যাম হিসেবে ৪ এমবি র‍্যাম ও ৪ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ পাবেন। মেমোরি হিসেবে ৩২ জিবি অব্দি ইউজ করতে পারবেন।

Nokia 110 মডেলের মোবাইলটিতে Nokia 105 মডেলের মোবাইলের মতো 800 mAh এর একটি ব্যাটারি পাবেন। যা আপনাকে ১৪ঘন্টা+ ব্যাকাপ দিতে সক্ষম।

এই মোবাইলতিও তিনটি কালারে (কালো, নীল, গোলাপী) বাজারে পাওয়া যাবে। মোবাইলটিতে থাকছে, ফ্লাসলাইট, ফোনবুক,ইন্টারনেট, কল রেকর্ডার এবং গেম ফিচার।

Nokia 110 features:

  • 1.7 ইঞ্চি 120*160 রেজুলেশনের ডিসপ্লে।
  • 800 mAh ব্যাটারি।
  • 2G Network।
  • ফ্লাসলাইট, ফোনবুক,ইন্টারনেট, কল রেকর্ডার এবং গেম ইত্যাদি ফিচারস।
  • 4 MB Ram ও 4 MB Internal Storage ।
  • জাভা সাপোর্ট করে না।

✬ Nokia 220

নোকিয়া ১১০ বাটন মোবাইলের দাম বাংলাদেশ

আপনি যদি বাংলাদেশে নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম কিংবা ভালো নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম সম্পর্কে জানতে চান, তবে একসাথে অনেক মোবাইলের নাম চলে আসবে।

তবে, আপনি যদি সেরা একটি ফিচার ফোন কিনতে চান, তবে Nokia 220 মোবাইলটি আপনার জন্য।

কারণ, এই মোবাইলে পাবেন, 2.4 ইঞ্চি TFT টেকনোলজির QVGA 240*320 রেজুলেশনের ডিসপ্লে, 0.3 মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা, এলইডি ফ্ল্যাশ, 320 পিক্সেল ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা, এসএমএস, এমএমএস ইত্যাদি।

নোকিয়া বাটন মোবাইল প্রাইস বাংলাদেশ এ অনেক বেশি হওয়ার কারণে, অনেকেই কিনতে চায় না। কিন্তু, নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম বেশি হওয়ার কারণে, এই মোবাইলগুলোতে ফিচার সবথেকে বেশি থাকে।

এছাড়াও, বিল্ড কোয়ালিটি সুন্দর হওয়ার কারণে মোবাইল অনেক টেকসই হয়ে থাকে। যারা নোকিয়া মোবাইল ব্যবহার করে, তাদের থেকে শুনে নিতে পারেন নোকিয়া মোবাইলের বিল্ড কোয়ালিটি সম্পর্কে।

আমাদের শেষ কথা

আজকের এই আর্টিকেলে আপনাদের সাথে নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

কয়েকটি নোকিয়া বাটন মোবাইলের দাম ও এসব ফোনের ফিচার নিয়ে বিস্তারিত তথ্য উল্লেখ করে দিয়েছি। আশা করছি আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে সহায়ক হবে।

92% LikesVS
8% Dislikes

Robin Miah

আমি রবিন মিয়া, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।
Back to top button
error: Content is protected !!