ব্লগিং টিপস

নতুন ব্লগ সাইটে গুগল এডসেন্স পাওয়ার সহজ উপায়।

ব্লগ সাইটে গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়-

ব্লগ ওয়েবসাইট থেকে টাকা আয় করার উপায় অনেক থাকলেও সবচেয়ে সহজ এবং জনপ্রিয় উপায়টি হচ্ছে ব্লগ সাইটে বিজ্ঞাপন বসিয়ে টাকা ইনকাম করা।

আর অনলাইনে যতগুলো বিজ্ঞাপনী সংস্থা রয়েছে সেগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো গুগল এডসেন্স।

গুগল এডসেন্স কী?

গুগল এডসেন্স (Google Adsense) হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ এড নেটওয়ার্ক, যা খুবই বিশ্বস্ত।

তাছাড়াও উচ্চ CPC, স্বচ্ছ রিপোর্ট এবং আরো বিশেষ কিছু বাড়তি সুযোগ সুবিধা থাকার কারণে সবাই গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে ব্লগ থেকে টাকা আয় করতে চায়।

তাইতো সবাই গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার উপায় জানতে চায়। জানতে চায়, খুব সহজে ব্লগ সাইটে কীভাবে গুগল এডসেন্স পাওয়া যায়।

Google Adsense থেকে টাকা আয় করতে হলে ব্লগ ওয়েবসাইট এডসেন্স এপ্রুভ করিয়ে নিতে হয়।

বেশিরভাগ ব্লগাররা, বিশেষ করে যারা ব্লগিং এ একেবারেই নতুন তারা তাদের ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স এর এপ্রুভ পেতে অনেক বেগ পোহাতে হয়। কারণ নতুনরা অনেকেই গুগল এডসেন্স এর নিয়ম জানে না।

এডসেন্স এর কাজ কী?

এডসেন্সের কাজ হচ্ছে তৃতীয় পক্ষ হিসেবে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেখানো। তারা বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে বিজ্ঞাপন নিয়ে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রচার করে।

মাঝখান থেকে এডসেন্স কমিশন রেখে দেয়। এতে বিজ্ঞাপনদাতা এবং প্রকাশক উভয়েই উপকৃত হয়। এডসেন্স পাঠকের আগ্রহ অনুযায়ী বিজ্ঞাপন দেখায়।

ব্লগ সাইটে সহজে গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়। | ব্লগে গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে কী করতে হবে?

আজকের এই আর্টিকেল’এ দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়ার উপায় আলোচনা করবো। তবে তার আগে চলুন জেনে নেওয়া যাক গুগল এডসেন্স কি বাংলা ব্লগ সাপোর্ট করে? অর্থাৎ বাংলা কন্টেন্ট এ গুগল এডসেন্স এপ্রুভ পাওয়া যায় কিনা?

এর উত্তর হচ্ছে, হ্যাঁ বাংলা কন্টেন্ট এর সাইটেও গুগল এডসেন্স পাওয়া যায়। গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয় করা সহজ হলেও এপ্রুভ পাওয়া কিছুটা জটিল যদি গুগল এডসেন্স আবেদন করার পূর্বে করনীয় কী তা না জানা থাকে।

তাই অনেকেই জানতে চায়, কীভাবে দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভ হবে? ব্লগে কীভাবে গুগল এডসেন্স পাওয়া যায়? গুগল এডসেন্স না পাওয়ার কারণ কী? ইত্যাদি ইত্যাদি।

ব্লগ সাইটে গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়
ব্লগ সাইটে গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়।

আমরা আমাদের নতুন ব্লগ সাইটে দ্রুত কীভাবে এ্যাডসেন্স এপ্রুভ পেতে পারি তা জানার জন্য নিচে দেওয়া নির্দেশনাগুলো মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

গুগল এডসেন্স আবেদন করার পূর্বে কী করনীয়? | ব্লগ সাইটে গুগল এডসেন্স পাওয়ার সহজ উপায়।

দ্রুত এডসেন্স পাওয়ার উপায়গুলো নিচে দেওয়া হলো, সেগুলো মেনে কাজ করলে সহজেই আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট মনিটাইজেশন করাতে পারবেন।

০১. টপ লেভেল ডোমেইন ক্রয় করুন।

অধিকাংশ নতুন ব্লগাররাই তাদের ব্লগিং শুরু করে Blogger এর ফ্রী সাব ডোমেইন ব্যবহার করে।

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ফ্রি ডোমেইন নাম ব্যবহার করেন এবং গুগল এডসেন্স এর এপ্রুভ দ্রুত পেতে চান তাহলে একটি টপ লেভেল ডোমেইন ক্রয় করে সাইটে যুক্ত করুন।

টপ লেভেল ডোমেইনগুলো হলো- .com, .co, .info, .org, .net ইত্যাদি। তার মানে এই না যে, আপনি ফ্রি ডোমেইন দিয়ে কোনো দিন গুগল এডসেন্স এর এপ্রুভ পাবেন না।

ফ্রি ডোমেইন দিয়েও এডসেন্সের এপ্রুভ পাওয়া যায় কিন্তু অনেক দেরিতে।

০২. গুরুত্বপূর্ণ পেইজগুলো তৈরি করুন।

গুগল এডসেন্সের জন্য আবেদন করার পূর্বে অবশ্যই ৪ টি গুরুত্বপূর্ণ পেইজ তৈরি করে নিবেন। সেগুলো হলো:

ক. গোপনীয়তা নীতি (Privacy Policy)

খ. যোগাযোগ (Contact)

গ. দাবি পরিত্যাগী (Disclaimer)

ঘ. সম্পর্কে (About)

তাছাড়া এসব পেইজগুলো ছাড়া কোনো ব্লগ বা ওয়েবসাইট দেখতে প্রফেশনাল মনে হয় না। এসব পেইজ জেনারেট করার জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট রয়েছে চাইলে সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

০৩. সাইটে পর্যাপ্ত পোস্ট বা আর্টিকেল থাকা।

ব্লগ ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্সের এপ্রুভ পেতে সর্বনিম্ন কয়টি পোস্ট বা আর্টিকেল থাকা লাগবে এমন কোনো শর্ত নেই।

আমি এমনও দেখেছি যে, ৩ টি মাত্র আর্টিকেল দিয়ে ব্লগ সাইটের জন্য এডসেন্স এর এপ্রুভ পেয়েছে। তবে সবার ক্ষেত্রেই তো আর এমন সম্ভব হবে না।

তাই আপনার ওয়েবসাইটটির জন্য আবেদন করার পূর্বে অবশ্যই সর্বনিম্ন ২০-২৫ টি ভালো মানের আর্টিকেল প্রকাশ করবেন।

আর প্রতিটি আর্টিকেল বিস্তারিত ভাবে লেখার চেষ্টা করবেন। তাহলে খুব দ্রুত এডসেন্স পেয়ে যাবেন এবং পোস্টগুলো সার্চ ইঞ্জিনে র‍্যাংক করার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে।

০৪. ডোমেইন এর বয়স।

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা নতুন ব্লগ সাইট শুরু করার কিছু দিনের মধ্যেই এডসেন্স পাওয়ার জন্য আবেদন করে বসে। তা মোটেও ঠিক নয়।

এডসেন্স এর এপ্রুভ পাওয়ার জন্য আপনার ডোমেইনের বয়স কমপক্ষে ২/৩ মাস হলে ভালো হয়।

নতুন সাইট নিয়ে বার বার আবেদন করে প্রত্যাখ্যান হওয়ার চেয়ে কিছুটা সময় নিয়ে প্রথম বারেই এপ্রুভ পাওয়া ভালো।

আর আপনার সাইটে যদি কোনো কাস্টম ডোমেইন যুক্ত না করা থাকে যেমন আপনার সাইটটি যদি Blogger এ তৈরি ফ্রি সাব ডোমেইনেই থেকে থাকে তাহলে সাইটের বয়স কমপক্ষে ৫-৬ মাস হওয়ার পর আবেদন করুন।

০৫. ফাষ্ট ও ক্লিন ওয়েবসাইট।

আপনি আপনার ওয়েবসাইটে যেই থিমই ব্যবহার করেন না কেন, তা যেন খুব পরিষ্কার হয় এবং দ্রুত লোড নেয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট খুব বেশি জাগ জমক করতে যাবেন না। কারণ ভিজিটররা আপনার ব্লগ সাইটে কন্টেন্ট পড়ে তথ্য জানতে আসবে, সাইট দেখতে না।

যেমন, ডায়নামিক ওয়েবসাইটগুলো কিছুটা দেরিতে লোড নেয়। আর সাইটে অপ্রয়োজনীয় কোনো কিছু ব্যবহার করা থেকেও বিরত থাকবেন।

আপনার ওয়েবসাইটের নেভিগেশন যেন ইউজার ফ্রেন্ডলি হয় অবশ্যই সেদিকে লক্ষ রেখে কাস্টমাইজ করবেন। চাইলে ভালো কোনো প্রেমিয়াম থিম ব্যাবহার করতে পারেন।

০৬. অন্য কোনো কোম্পানির বিজ্ঞাপন ব্যাবহার না করা।

আপনি যখন এডসেন্সের জন্য আবেদন করবেন, তখন যাতে আপনার সাইটে অন্য কোনো এড নেটওয়ার্ক এর বিজ্ঞাপন যুক্ত করা না থাকে।

এতে তারা আপনার আবেদন সহজেই প্রত্যাখ্যান করে দিতে পারে। তবে এডসেন্সের আবেদন করার পূর্বে এবং এডসেন্সের এপ্রুভ পাওয়ার পর আপনি এডসেন্সের পাশাপাশি অন্য কোনো এড নেটওয়ার্ক এর বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন। এতে কোনো সমস্যা হবে না।

০৭. ব্লগ সাইট সার্চ ইঞ্জিনে যুক্ত করা।

দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়ার আরো একটি উপায় হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইটটি বড় বড় সার্চ ইঞ্জিনগুলোতে যুক্ত করে দেওয়া।

বিশেষ করে সাইটের পোস্টগুলো গুগল সার্চ কনসলে ইনডেক্স করে নেওয়া। আর সার্চ ইঞ্জিনগুলোতে সাইট ইনডেক্স করার ফলে আপনার ব্লগের অর্গানিক ভিজিটর অনেক দ্রুত বৃদ্ধি পেতে থাকবে।

০৮. ব্লগে ভিজিটর নিয়ে আসা।

অনেকেই মনে করে, ব্লগে গুগল এডসেন্স এর অনুমোদন পেতে ভিজিটর কোনো বিষয় না।

তবে আপনি যেহেতু ব্লগে গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপন দেখিয়ে টাকা আয় করতে চাচ্ছেন, সে জন্য আপনার ব্লগে ভিজিটরের প্রয়োজন হবে।

তাই গুগল এডসেন্স এর এপ্রুভের জন্য আবেদন করার পূর্বেই আপনার সাইটে ভিজিটর নিয়ে আসুন।

আর ভিজিটর নিয়ে আসার জন্য আপনার সাইটের ব্যাকলিংক তৈরি করুন, সাইট সার্চ ইঞ্জিনে যুক্ত করে নিন, সাইটের আর্টিকেলগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

০৯. ইউনিক কন্টেন্ট।

আপনার ব্লগের আর্টিকেলগুলো আবশ্যই আপনার নিজের লেখা হতে হবে।

অন্য কোনো ওয়েবসাইট থেকে হুবহু কিবা আংশিক কপি করে এনে অথবা অন্যের লেখা অন্য ভাষার কোনো আর্টিকেল অনুবাদ করে আপনার ব্লগে পোস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।

কপি বা অনুবাদ করা কন্টেন্ট দিয়ে কখনো গুগল এডসেন্সের অনুমোদন পাবেন না।

আর আপনার ব্লগ সাইটে সহজে এডসেন্স পেতে এমন বিষয়ের উপর আর্টিকেল লিখুন যেই টপিকের উপর অনলাইনে খুব বেশি আর্টিকেল খুজে পাওয়া যায় না।

এই টিপসটি অনুসরণ করলে অল্প আর্টিকেল দিয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে এডসেন্স এর অনুমোদন পেয়ে যাবেন। আর ট্রেন্ডিং টপিকগুলো নিয়ে লেখালেখি করার চেষ্টা করুন।

১০. কপিরাইট ইমেজ ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকা।

আমরা অনেকেই ইউনিক আর্টিকেল লিখলেও আর্টিকেলের ভেতরে ব্যবহার করার জন্য ছবিগুলো গুগল বা অন্য কোনো ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে তা ব্যবহার করি।

যা ভুল একটি কাজ। কারণ আপনি অন্য কোনো সাইট থেকে Copyright Image ডাউনলোড করে আপনার সাইটে আপলোড করে ব্যবহার করলেই সেগুলো কিন্তু আপনার নিজের কনটেন্ট হয়ে যায় না।

আর এমন ছবি ব্যবহার করে আপনি কখনো এডসেন্সের অনুমোদন পাবেন না। মোবাইলের জন্য Picsart, PixelLab সহ বিভিন্ন জনপ্রিয় ফটো এডিটিং অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে।

আপনি চাইলে সেগুলো দিয়েই আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটের জন্য প্রয়োজনীয় সব ছবি তৈরি বা কাস্টমাইজ করে নিতে পারেন।

অথবা, অনলাইনে কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে কপিরাইট ফ্রী ইমেজ পাওয়া যায়। এসব ইমেজ ডাউনলোড করে আপনার ব্লগ সাইটে নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারবেন।

কপিরাইট ফ্রী ইমেজ ডাউনলোড করার জন্য জনপ্রিয় কিছু ওয়েবসাইট হলো- Pixabay.com, Pexels.com, Unsplash.com ইত্যাদি।

১১. গুগল এডসেন্সের পলিসি ভঙ্গ করে এমন কিছু না রাখা।

ব্লগ সাইটে এডসেন্স পাওয়ার শর্তসমূহ এর মধ্যে অন্যতম শর্ত হচ্ছে আপনার সাইটে গুগল এডসেন্সের কন্টেন্ট পলিসি মেনে আর্টিকেল লেখা।

অর্থাৎ গুগল এডসেন্সের পলিসি ভঙ্গ করে আপনার সাইটে এমন কিছু না রাখা।

যেমন: ড্রাগস,অস্ত্র বা বোমা বিস্ফোরণ সংক্রান্ত কোনো কিছু, প্রেমিয়াম কোনো কিছু ফ্রিতে শেয়ার করা, হ্যাকিং, ক্রাকিং সংক্রান্ত আর্টিকেল, নগ্নতা বা যৌন সামগ্রী, হিংস্র কোনো কিছু, স্প্যাম, বিভ্রান্তিকর মেটাডেটা, স্ক্যাম, ক্ষতিকারক বা বিপজ্জনক কন্টেন্ট, কপিরাইট আইন লংঘন করে এমন কন্টেন্ট বা কন্টেন্ট এর অংশ বিশেষ ইত্যাদি।

পরিশেষে: উপরে দেখানো গুগল এডসেন্স এপ্রুভালের নিয়মগুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করে কাজ করলে খুব সহজেই আপনার ব্লগে মনিটাইজেশন পেয়ে যাবেন।

তাই নতুন ব্লগাররা সহজে এডসেন্স এপ্রুভাল পাওয়ার জন্য উক্ত উপায়গুলো মেনে চলে তারপর আবেদন করুন, দুই সপ্তাহের মধ্যেই আপনার ব্লগ সাইটটি এডসেন্সে এপ্রুভ হয়ে যাবে।

আর কোনো প্রশ্ন থাকলে নিচের কমেন্ট বক্সে জানান। ধন্যবাদ।

Mohammad Robin

আমি মুহাম্মদ রবিন, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।

এ সম্পর্কিত আরো পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!