ইউটিউব

ইউটিউব চ্যানেলের জন্য নাম নির্বাচন করবেন যেভাবে।

আপনি যদি কোনো ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে কাজ করতে চান, তাহলে আপনাকে প্রথমেই যে কাজটি করতে হবে তা হলো চ্যানেলের নিশ ঠিক করা, অর্থাৎ আপনার চ্যানেলে কোন ধরনের ভিডিও আপলোড করবেন সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া।

নতুন ইউটিউব চ্যানেলের জন্য নাম নির্বাচন।
নতুন ইউটিউব চ্যানেলের জন্য নাম নির্বাচন।

আপনার পছন্দের নিশ বা টপিক বাছাই করতে “ইউটিউব থেকে আয়ের জন্য ১৫ টি সহজ ভিডিও টপিক আইডিয়া।” আর্টিকেলটি পড়তে পারেন। ইউটিউব চ্যানেল এর জন্য নিশ বাছাই করা হয়ে গেলে পরবর্তীতে যে কাজটি করতে হবে তা হলো সঠিক ভাবে ইউটিউব চ্যানেলের নাম নির্বাচন করা।

অনেকেই প্রশ্ন করেন, “আমার ইউটিউব চ্যানেলের নাম কি দেওয়া যায়?” আজকের পোস্টটি আপনাদের জন্য, যাতে ইউটিউব চ্যানেলের ভালো নাম সহজেই খুজে পেতে পারেন।

একটি সুন্দর ইউটিউব চ্যানেলের নাম কেন এতো গুরুত্বপূর্ণ?

আজকে শখের বসে যে ইউটিউব চ্যানেল খুলতে যাচ্ছেন কাল যে সেই চ্যানেলটি জনপ্রিয় হবেনা, আপনার পরিচিতি বাড়াতে কাজ করবে না এর কী গ্যারান্টি? তাই চেষ্টা করুন চ্যানেল শুরুর একদম প্রথম থেকেই প্রফেশনাল ভাবে সব কিছু করার।

আজকে যে চ্যানেলটি তৈরি করতে যাচ্ছেন, চিন্তা করুন অদূর ভবিষ্যতে এই চ্যানেলটির নামে একটি ব্র‍্যান্ড তৈরি হবে। তাই শুরুতেই সুন্দর একটা ইউটিউব চ্যানেলের নাম চাই। Youtube Channel এর সুন্দর নাম বাছাইয়ে দরকার হয় কয়েকদিন সময় ব্যয় করুন।

সঠিকভাবে একটি নতুন ইউটিউব চ্যানেল নাম নির্বাচন করা কঠিন একটি কাজ যা অনেকেই ভুল করে। তবে নিচে দেওয়া নির্দেশনাগুলো অনুসরণ করলে তা সহজেই সম্ভব।

আপনার নতুন ইউটিউব চ্যানেলের জন্য নাম নির্বাচন করবেন যেসব বিষয় মাথায় রেখে:-

০১: ভিডিও টপিক এর সাথে মিল রেখে নাম।
Youtube Channel নাম এমন হওয়া প্রয়োজন যাতে ভিউয়ার্সরা নাম দেখেই চ্যানেলের কন্টেন্টগুলো কোন ধরনের তা বুঝতে পারে। আর এর জন্য আপনাকে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের নাম টপিক রিলেটেড রাখতে হবে।

এতে অতি অল্প সময়ে আপনার কাংক্ষিত ভিউয়ার্সদের পেয়ে যাবেন। তা হোক ইসলামিক ইউটিউব চ্যানেল নাম, শিক্ষামূলক ইউটিউব চ্যানেলের নাম কিংবা অন্য কোনো কিছু সব সময় চ্যানেলের ভিডিওর টপিকের সাথে মিল রেখে করবেন।

০২: মনে রাখা সহজ এমন নাম।
চ্যানেলের জন্য এমন সহজ একটি নাম বাছাই করুন যাতে ভিউয়ার্সদের মুখে মুখে থাকে। মনে রাখা সহজ এমন নাম চ্যানেল অতি অল্প সময়ে বড় হতে সাহায্য করবে। তাই প্রায় সব ধরনের মানুষই যাতে আপনার চ্যানেলের নামটি মনে রাখতে এমন একটি ইউটিউব চ্যানেল নাম সিলেক্ট করুন।

০৩: সহজ বানানের নাম।
আপনার চ্যানেলের নামের বানান যেন সহজ হয় সে বিষয়েও খেয়াল রাখতে হবে। কঠিন বানানের নাম লিখে সার্চ করে মানুষ জন আপনার চ্যানেলটি সহজে খুজে পাবেনা। সহজ বানানের নাম আপনার চ্যানেলটি সহজে খুজে পেতে সাহায্য করবে। যদি আপনার ভিউয়ার্সরা বাংলা ভাষাভাষী হয় তাহলে চাইলে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের বাংলা নামও রাখতে পারবেন।

০৪: আকর্ষণীয় নাম।
ইউটিউব চ্যানেলের সুন্দর নাম বাছাই করুন। আপনার বাছাই করা ইউটিউব চ্যানেল এর নাম যেন আকর্ষণীয় হয় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। যাতে চ্যানেলটির নাম দেখেই ভিউয়ার্সরদের মনে চ্যানেলটি ঘুরে আসার আগ্রহ জাগে।

এতে আপনার ভিডিওর ভিউ বারবে আর তার সাথে সাথে সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যাও। কারণ মানুষ জন যখন আপনার চ্যানেলটি ঘুরে আসবে তখন ভিডিওগুলো ভালো লাগলে চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করবে যাতে পরবর্তী ভিডিও গুলো তার কাছে পৌছায়।

০৫: নাম ছোট রাখুন।

চ্যানেলের নামটি অবশ্যই ছোট রাখবেন। কারণ ছোট নাম মনে রাখা সহজ। ইউটিউবে বেশিরভাগ বড় বড় চ্যানেলগুলোর নাম ছোট দেখা যায়। তাই আপনার চ্যানেলটির নাম দুই শব্দের মধ্যে রাখার চেষ্টা করুন। যদি এক শব্দের নাম বাছাই করতে পারেন তাহলে তো আরো ভালো।

০৬: ডোমেইন খালি আছে এমন নাম।
আমি আগেই বলেছি আপনার চ্যানেল নিয়ে চিন্তা ভাবনা সব সময় যেন প্রফেশনাল ভাবে হয়। আপনার চ্যানেলটি যখন অনেক বড় হবে এবং চ্যানেলের নামে কোনো ব্র‍্যান্ড তৈরি করতে চাইলে আপনার প্রয়োজন হবে একটি ওয়েবসাইট।

আর আমরা জানি ওয়েবসাইটের ডোমেইন নামগুলো ইউনিক হয়। তাই চ্যানেলের নাম বাছাই করার পূর্বে উক্ত নামে কোনো টপ লেভেল ডোমেইন খালি আছে কিনা তা চেক করে নিন। ডট কম, ডট নেট, ডট অর্গ, ডট ইন ইত্যাদি টপ লেভেল ডোমেইন।

০৭: প্রতিযোগি চ্যানেলের নাম নকল করবেন না।
আপনার চ্যানেলটি যে নিশ বা টপিকের উপর তৈরি করতে চাচ্ছেন ঐ একই নিশ বা টপিকের চ্যানেলগুলোর নাম দেখে ধারণা নিয়ে আপনার চ্যানেলের জন্য নাম নির্ধারণ করতে পারেন। তবে কখনোই ঐ চ্যানেলগুলোর নাম নকল করতে যাবেন না। কারণ বড় চ্যানেলগুলোর নাম নকল করে কখনোই এগিয়ে যেতে পারবেন না।

০৮: নিজের নাম ব্যবহারে সতর্ক থাকুন।
ইউটিউব চ্যানেলের জন্য নাম বাছাই করতে উক্ত নামের সাথে নিজের নাম যুক্ত না করাই ভালো। কারণ ভবিষ্যতে আপনি যদি আপনার চ্যানেলটি বিক্রি করতে চান কিংবা অন্য কারো সাথে পার্টনারশিপে কাজ করতে চান তাহলে সমস্যায় পড়বেন। যদিও ইউটিউব চ্যানেলের নাম পরিবর্তন করা যায় কিন্তু চ্যানেল জনপ্রিয় হয়ে গেলে পুরনো নামেই সবাই চিনবে, ভিউয়ার্সরা চ্যানেল খুজে পাবে না।

০৯: ইউটিউব ইউনিক নাম।
উপরের নির্দেশনাগুলো মেনে সুন্দর সুন্দর ইউটিউব চ্যানেল নামগুলো কাগজে অথবা আপনার সুবিধা মতো জায়গায় নোট করে নিন। তারপর আপনার নোট করা ইউটিউব চ্যানেলের নাম সমূহ ইউনিক কিনা তা একটি একটি করে চেক করে নিন। কারণ ইউটিউব চ্যানেলের ইউনিক নাম অনেক গুরত্বপূর্ণ। ধরুন, আপনি একটি ইউটিউব চ্যানেল খুললেন, যে নামে পূর্ব থেকেই বড় এক বা একাধিক ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে। তাহলে আপনার নতুন চ্যানেলের ভিডিওগুলো কখনোই র‍্যাংক করবে না।

কারণ কেউ যখন আপনার চ্যানেলটির নাম লিখে সার্চ করবে তখন বড় বড় চ্যানেলগুলোই সার্চ রেজাল্টে দেখাবে, আপনার নতুন চ্যানেল দেখাবে না। তাই আপনার চ্যানেলের জন্য একটি ইউনিক ইউটিউব চ্যানেল নাম বাছাই করুন। আর তার সাথে ঐ নামে বড় কোনো সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট আছে কিনা পারলে তাও একটু যাচাই করে নিন।

আপনার নোট করা নামগুলো ইউনিক কিনা কীভাবে বুঝবেন?

ইউটিউবে গিয়ে নোট করা নামগুলো থেকে একটি একটি করে নাম সার্চ করুন। এবং সার্চ ফিলটার থেকে Type অপশনে ‘All’ পরিবর্তন করে ‘Channel’ বাছাই করে ‘Apply’ করে দিন। তাহলেই ঐ নামে আরো কোনো চ্যানেল থাকলে তা দেখাবে। আর যদি না থাকে তাহলে ঐ নামটি ইউনিক নাম হিসেবে বিবেচনা করবেন।
ধন্যবাদ।

Mohammad Robin

আমি মুহাম্মদ রবিন, একজন সৌদি আরব প্রবাসী। আমার বাসা টাংগাইলের কালিহাতীতে। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য নিজে জানার জন্য এবং আপনাদের জানানোর উদ্দেশ্যে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছি।

এ সম্পর্কিত আরো পোস্ট

১ টি মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!